Wednesday, June-3, 2020, 08:17 AM
Breaking News
Download http://bigtheme.net/joomla Free Templates Joomla! 3
Home / লাইফস্টাইল / ঘুমের অভ্যাস পরিবর্তন করতে

ঘুমের অভ্যাস পরিবর্তন করতে

ঘুমের অভ্যাসে টুকিটাকি পরিবর্তন আনা আর সকাল বেলা সূর্যের আলোর সংস্পর্শে আসার মাত্রা বাড়ানোর মাধ্যমে তিন সপ্তাহের মধ্যেই ঘুমের অভ্যাসে পরিবর্তন আনা সম্ভব বলে দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরা।

যাদের মধ্যরাত পর্যন্ত জেগে থাকা আর দুপুরের কাছাকাছি সময়ে ঘুম থেকে ওঠার বদভ্যাস হয়ে গেছে তারা এই পদ্ধতির মাধ্যমে ঘুমের অভ্যাস দুই ঘণ্টা এগিয়ে আনতে পারেন।

এই পরিবর্তনের মাধ্যমে সকালে কাজে মনোযোগ আসবে বেশি, খাদ্যাভ্যাস হবে আরও স্বাস্থ্যকর এবং কমতে পারে হতাশাগ্রস্থতা, এমনটাই দেখা গেছে তাদের গবেষণায়।

‘স্লিপ মেডিসিন’ নামক জার্নালে প্রকাশিত এই গবেষণায় দেখানো হয়, যারা রাত জাগেন তাদের ‘সার্কাডিয়ান রিদম’ ওষুধ কিংবা বিশেষ কোনো পদক্ষেপ নেওয়া ছাড়াও পরিবর্তন করা সম্ভব।

গবেষণায় সহকারী লেখক, যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অফ বার্মিংহাম’য়ের অ্যান্ড্রু ব্যাগশ বলেন, “রাতে দেরিতে ঘুমানোর অভ্যাস একজন মানুষের দৈনন্দিন সামাজিক কার্যকলাপে বাধা হয়ে দাঁড়ায়, যার ফলাফল হিসেবে আসতে পারে নানান বিপত্তি। এরমধ্যে আছে সারাদিন ঝিমানো এবং মানসিকভাবে বিপর্যস্ত থাকা।”

গবেষকরা দেখতে চেয়েছিলেন সাধারণ কিছু পরিবর্তন আনার মাধ্যমে এই সমস্যা সমাধান করা সম্ভব কি না। এজন্য একদল মানুষকে নিয়ে তিন সপ্তাহ ধরে গবেষণা চালান গবেষকরা।

এই গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের বলা হয় তারা সাধারণত যে সময় ঘুম থেকে ওঠেন তার দুই থেকে তিন ঘণ্টা আগে উঠতে এবং সকাল বেলা সূর্যের আলোর সংস্পর্শে আসার পরিমাণ বাড়াতে।

ঘুমাতে যাওয়া সময় দুই থেকে তিন ঘণ্টা এগিয়ে আনতে বলা হয় এবং সন্ধ্যা পর থেকে আলোর সংস্পর্শে আসার মাত্রা কমাতে বলা হয়।

এছাড়াও কাজের দিন এবং ছুটির দিন, সবসময়ই ঘুমের অভ্যাস একইরকম রাখতে বলেন গবেষকরা। সেই সঙ্গে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর যত দ্রুত সম্ভব নাস্তা খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

দুপুরের খাবার প্রতিদিন একই সময়ে খাওয়ানো হয় এবং সন্ধ্যা সাতটার পর রাতের খাবার খেতে বারণ করা হয়।

ব্যাগশ বলেন, “আমরা দেখতে চেয়েছিলাম যে ঘরে বসে সাধারণ কিছু অভ্যাস গড়ে তোলার মাধ্যমে ঘুমজনীত এই সমস্যাগুলো সমাধান করা যায় কি না। আমাদের উদ্দেশ্য সফল হয়েছে এবং গড় হিসেবে মানুষের ঘুমের সময় এগিয়ে এসেছে প্রায় দুই ঘণ্টা।”

“আরও খুশির ব্যাপার হল, এমনটা হওয়ার কারণে তাদের মানসিক অবস্থারও উন্নতি হয়েছে, ঝিমুনি কমেছে। পরিশেষে অংশগ্রহণকারীরা ইতিবাচক ফলাফল পেয়েছে।”

Check Also

৩১ মে থেকে ট্রেন চালুর প্রস্তুতি চলছে চট্টগ্রামে

৩১ মে থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চালানোর লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা করেছে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের কর্মকর্তারা। বৃহস্পতাবার (২৮ …

করোনার সংক্রমণ রুখতে SNG 1001 ইনহেলার!

ফুসফুসে করোনা সংক্রমণ থেকে সহজেই রোগীকে বাঁচানো সম্ভব! তার জন্য অব্যর্থ ইনহেলার তৈরি করেছেন একদল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *